ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাংবাদিককে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ :ঝিনাইদহে ৭১ টেলিভিশন ও দৈনিক ভোরের কাগজের সাংবাদিক মনিরুজ্জামান সুমনকে মোবাইল ফোন থেকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এ বিষয়ে শৈলকুপা থানায় নিরাপত্তা চেয়ে সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। জিডি নং-২৬৫, তাং-০৬/১০/১৯ ইং। জিডি সুত্রে জানা গেছে, ৫ অক্টোবর শনিবার বিকাল ৪.৫৭ মিনিটের সময় শৈলকুপা প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জামান সুমনের ব্যবহৃত ০১৭৯৮১৩৫৩৩০ মোবাইল ফোনে ০১৭৭৯৫০৪৪০৩ নম্বর থেকে হত্যা করাসহ বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে এসএমএস পাঠানো হয়েছে। এসএমএস’এ উল্লেখ করা হয়, “তোর সময় শেষ, তুই যেখানে যাচ্ছিস সেখান থেকে আর বেঁচে ফিরতে পারবি না, আমি তোর চার পাশে ছায়ার মতো লেগে আছি, তোর এমন অবস্থা করবো” এছাড়াও সাংবাদিক সুমনের ব্যাক্তিগত ও পারিবারিক অশালীন কটুক্তি করে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে এসএমএসটি পাঠানো হয়েছে। এরপর থেকেই হুমকি দাতার মোবাইল নাম্বারটি বন্ধ রয়েছে। সাংবাদিক মনিরুজ্জামান সুমন জানান, সে ও তার পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। যে কারনে নিরাপত্তার স্বার্থে সে থানায় জিডি করেছে। প্রশাসনের কাছে তার দাবী অনতিবিলম্বে তদন্ত সাপেক্ষে হুমকি দাতাকে খুঁজে বের করে শাস্তি প্রদান করা হোক। ব্যাপের শৈলকুপা প্রেসক্লাবের সভাপতি মাসুদুজ্জামান লিটন জানান, একটি কুচক্রীমহল দীর্ঘদিন সাংবাদিকদের হয়রানী নানা ষড়যন্ত্র চালিয়ে আসছে। মহলটি নামে বেনামে বিভিন্ন মোবাইল থেকে সাংবাদিকদের হুমকি দিয়ে আসছে। বিষয়টি প্রশাসনিক কর্মকর্তারা অবগত আছেন। সাংবাদিক হত্যার হুমকির ঘটনায় শৈলকুপা প্রেসক্লাবের জরুরী বৈঠকে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। সেই সাথে হুমকিদাতাকে সত্বর গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন শৈলকুপা প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক শিহাব মল্লিক। শলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বজলুর রহমান জানিয়েছেন, সাংবাদিক মনিরুজ্জামান সুমনকে হুমকি দেয়ায় থানায় জিডি হয়েছে। তদন্ত চলমান রয়েছে। খুব দ্রæত সময়ের মধ্যেই হুমকি দাতাকে আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে।